মতিহারে শিক্ষার্থীদের প্রাণের মেলা
প্রকাশ : ২৪ জুন ২০১৯, ১৩:৫৭
মতিহারে শিক্ষার্থীদের প্রাণের মেলা
রাবি প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

দীর্ঘ ৪৭ দিন ছুটি থাকায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শিক্ষার্থীদের মনে বিরাজ করছিল প্রাণ শূন্যতা। ছুটি শেষে শিক্ষার্থীদের আনাগোনায় ফের প্রাণ ফিরেছে ৩৫ হাজার শিক্ষার্থীর বিচরণকেন্দ্র চিরসবুজ মতিহারের বুক।


রবিবার সকালে হল খুললে ফিরতে শুরু করে আবাসিক শিক্ষার্থীরা। তবে ক্লাস না থাকায় এদিন ক্যাম্পাসে ছিল না শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের আনাগোনা। এদিকে সোমবার ক্লাস খুললে শিক্ষার্থীদের গান-গল্প, আড্ডায় মুখরিত হয়ে উঠেছে সবুজে ঘেরা এই ক্যাম্পাসের প্রতিটি চত্বর। বিশ্বকাপ ক্রিকেটের উন্মাদনা তাতে যোগ করেছে নতুন মাত্রা।


ক্যাম্পাস ঘুরে দেখা যায়, সোমবার সকাল থেকে ক্যাম্পাসের বিভিন্ন পয়েন্ট শিক্ষার্থীদের কোলাহলে মুখরিত হয়ে ওঠে। আড্ডাস্থলগুলো বেশ জমে ওঠেছে। টুকিটাকি চত্বর, সাগর ক্যান্টিন, পরিবহন মার্কেট এলাকা, শহীদ মিনার চত্বর, পুরনো ফোকলোর মাঠ, সাবাস বাংলাদেশ মাঠ, গ্রন্থাগার চত্বর, মিডিয়া চত্বর, আমতলা, চারুকলা চত্বরসহ বিভিন্ন পয়েন্টে শিক্ষার্থীরা বন্ধুদের নিয়ে জম্পেশ আড্ডায় মেতে উঠেছেন। যেন টানা ৪৭ দিনের ছুটিতে জমিয়ে রাখা কথার ঝুলি নিয়ে বসেছেন তারা। ক্লাসের ফাঁকে ফাঁকে আড্ডা-গল্পে মেতে উঠা এ যেন আরেক ঈদ!


দীর্ঘ ছুটি শেষে ক্যাম্পাসে ফেরার অনুভূতি জানতে চাইলে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী আশিক আদনান বলেন, এক মাসেরও বেশি সময় ক্যাম্পাস ফিরেছি। একা একা লাগছিল। এখন বন্ধুরা সবাই মিলে ঘুরছি, আড্ডা দিচ্ছি বেশ ভালোই লাগছে।


বাংলা বিভাগের শিক্ষার্থী শ্রাবন্তী রাণী বলেন বলেন, বাড়িতে যত মজার ঘটনা ঘটে তা ক্যাম্পাসের বন্ধুদের সাথে শেয়ার না করলে পেট ভারী হয়ে থাকে। অনেকদিন পর বন্ধুদের কাছে পেয়ে বেশ জমে উঠেছে আমাদের আড্ডা।


সমাজকর্ম বিভাগের শায়লা সাবরিন ইতি বলেন, দীর্ঘ ছুটিতে বাড়িতে সময় পার হচ্ছিল না। তাই ক্যাম্পাসের সজীবতায় ফিরে পেয়েছি প্রাণ। বন্ধুদের সাথে মজা করছি, আড্ডা দিচ্ছি জম্পেশ সময় পার করছি।


অন্যদিকে, ঈদের দীর্ঘ ছুটির পর ক্যাম্পাস খোলায় কাজের চাপ বেড়েছে প্রশাসন ভবনের বিভিন্ন দফতরেও। সব মিলিয়ে চিরচারিত ব্যস্ততায় মুখরিত হয়ে উঠেছে উত্তরবঙ্গের শিক্ষার বাতিঘর রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়।


এদিন থেকে বিশ্ববিদ্যালয় পরিবহনের বাসও সবগুলো রুটে যথারীতি চলাচল করেছে বলে জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দফতরের প্রশাসক অধ্যাপক ড. প্রভাষ কুমার কর্মকার।


উল্লেখ্য, পবিত্র শবে কদর, ঈদুল ফিতর ও গ্রীষ্মকালীন অবকাশ উপলক্ষে গত ৮ মে থেকে টানা ৪৭ দিন ক্যাম্পাস ছুটি শুরু হয়। হলসমূহ ৩০ মে বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টা থেকে বন্ধ হয়। ছুটি শেষে রবিবার আবাসিক হলগুলো খুলে দেয়া হয়। এবং ২৪ জুন সোমবার ক্লাস-পরীক্ষা যথারীতি চালু হয় ।


বিবার্তা/পাভেল/আকবর

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

বি-৮, ইউরেকা হোমস, ২/এফ/১, 

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com