জবিতে নেই যথাযথ অগ্নিনিরাপত্তা ব্যবস্থা
প্রকাশ : ২২ এপ্রিল ২০১৯, ০৮:৩৩
জবিতে নেই যথাযথ অগ্নিনিরাপত্তা ব্যবস্থা
জবি প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

বর্তমান সময়ে অগ্নিকাণ্ড যখন সবার দুশ্চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে তখনও অগ্নিকাণ্ড প্রতিরোধমূলক যথাযথ ব্যবস্থা নিতে উদাসীনতা দেখাচ্ছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) প্রশাসন।


যেখানে প্রতিদিন কয়েক হাজার শিক্ষার্থী-শিক্ষক ও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পদাচারণা সেখানে নেই অগ্নিনির্বাপনের সুব্যবস্থা। এমনকি বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাবগুলোতেও নেয়া হয়নি কেমিক্যাল ব্যবহারে সচেতনতামূলক কোনো উদ্যোগ। সেই সাথে নিরাপত্তা কর্মীদেরও এখনো অবধি দেয়া হয়নি অগ্নি নির্বাপনের প্রাথমিক প্রশিক্ষণ।


সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, জবির উর্ধ্বমুখী সম্প্রসারণ অব্যাহত থাকা নতুন ভবনের নবম তলা পর্যন্ত একাডেমিক ও প্রশাসনিক কাজ চলছে। নতুন ভবনের যে কয়টি ফায়ার বক্স রয়েছে তা অকেজো এবং ভঙ্গুর অবস্থায় রয়েছে।


ভবনটিতে রয়েছে গুরুত্বপূর্ণ ১৩টি বিভাগ (অ্যাকাউন্টিং, ম্যানেজমেন্ট, ফিন্যান্স, মার্কেটিং, কম্পিউটার সাইন্স, মাইক্রোবায়োলজি, বায়োকেমিস্ট্রি, জেনেটিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং, ফার্মেসি, নৃবিজ্ঞান, সাংবাদিকতা, ফিল্ম অ্যান্ড টেলিভিশন, আইন, ভূমি আইন ও ব্যবস্থাপনা), সকল ডিন অফিস, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক দফতর, কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগার।


এছাড়াও ভবনের নিচ তলায় রয়েছে মেডিকেল সেন্টার, ছাত্রকল্যাণ, ইঞ্জিনিয়ারিং সেকশনের অফিস, মেয়েদের কমনরুম, টিচার্স লাউঞ্জ এবং ইনডোর গেইম এরিয়া।


শিক্ষার্থীদের সূত্রে জানা যায়, ছাত্র-শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারী মিলে প্রতিদিন প্রায় ৭ হাজার মানুষের আসা-যাওয়া চলে এই ভবনে।


শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, ভবনটির গঠন ও ব্যবহারের কারণে অগ্নি ঝুঁকি আরো বৃদ্ধি পেয়েছে। প্রায় সব রুমে শীতাতপনিয়ন্ত্রক থাকায়, কার্যত রুমগুলো বদ্ধ অবস্থায় থাকে। নির্মাণ কাজ চলায় বিকল্প সিঁড়িপথটিও বন্ধ আছে। কোনো ধরণের অগ্নিকাণ্ড ঘটলে কার্যত ভবনটিতে সবাই বন্দি হয়ে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।


তাই শিক্ষার্থীদের দাবি দ্রুত অগ্নিসংকেত এবং অগ্নি নির্বাপণ যন্ত্রগুলো চালু করে দ্রুত ব্যবহার উপযোগী করা এবং অগ্নিকাণ্ডের সময় যন্ত্রগুলো ব্যবহার করার জন্য প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ দিতে হবে।


এ বিষয়ে জবির প্রকৌশল দফতরের প্রধান প্রকৌশলী সুকুমার চন্দ্র সাহা বলেন, নতুন ভবনের কিছু ফ্লোরে অগ্নি নির্বাপণ ব্যবস্থা আছে, শিগগিরই অন্য ফ্লোরে চালু করা হবে।


অগ্নিনির্বাপণ যন্ত্রগুলো সচল আছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, যন্ত্রগুলো চালুর ব্যাপারে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।


জানতে চাইলে জবি উপাচার্য আক্ষেপ করে বলেন, আমার নিজের অফিস কক্ষেই তো অগ্নিনির্বাপণ কোনো যন্ত্র নেই, আমি কার কাছে অভিযোগ করবো ? এসব ব্যাপারে আমি বারবার বলেছি, আবারো বলব, নিরাপত্তা বিষয়ে কোনো আপোষ করবো না।


এছাড়া বিজ্ঞান, কলা ও সমাজ বিজ্ঞান অনুষদের ভবনসমূহ বেশিতল না হওয়ায় ঝুঁকির সম্ভাবনা কম। তবে শিক্ষার্থীদের প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ ও সচেতনতা থাকলে, যে কোনো জায়গায় তা কাজে লাগানো যাবে বলে মনে করেন শিক্ষকেরা।


বিবার্তা/আদনান/জাকিয়া

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com