২৮ বছর পর ফের ডাকসুর যাত্রা শুরু আজ
প্রকাশ : ২৩ মার্চ ২০১৯, ০৯:৩৪
২৮ বছর পর ফের ডাকসুর যাত্রা শুরু আজ
ঢাবি প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদে (ডাকসু) নবনির্বাচিত কমিটির প্রথম কার্যকরী সভা ও অভিষেক অনুষ্ঠান আজ শনিবার। আজ এই মেয়াদের প্রথম কার্যকরী সভার মাধ্যমে দীর্ঘ ২৮ বছর পর আবারো যাত্রা শুরু করবে ডাকসু।


এদিন বেলা ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অফিস সংলগ্ন আবদুল মতিন চৌধুরী ভার্চুয়াল ক্লাসরুমে ডাকসুর সভাপতি উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আখতারুজ্জামান ও কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াতুল ইসলামসহ ডাকসুর নবনির্বাচিত প্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে এ অনুষ্ঠান শুরু হবে বলে জানা গেছে।


একই সাথে হল ছাত্র সংসদে নবনির্বাচিত কমিটির প্রথম সভা ও অভিষেক অনুষ্ঠান হবে স্ব স্ব হল ছাত্র সংসদে।


দীর্ঘ ২৮ বছরের প্রতীক্ষার অবসান ঘটিয়ে গত ১১ মার্চ ডাকসু নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে ২৫টি পদের মধ্যে ২৩টিতেই জয় পায় ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠন ছাত্রলীগ। ১৮টি হলের ১২টিতেই ভিপি-জিএসসহ অধিকাংশ পদে জয় পায় তারা। বাকি ছয়টিতে স্বতন্ত্র পদে ভিপি-জিএসসহ কিছু পদে জয় পায় স্বতন্ত্র প্রার্থীরা।


অনুষ্ঠিত এই নির্বাচনে ছাত্রলীগ ছাড়া কারচুপি ও বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে ডাকসু ও হল সংসদ নির্বাচন বর্জন করেন ভিপি নূরুল হক নূরের সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদসহ প্রায় সব প্যানেল। তবে এরপরও দায়িত্ব গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ডাকসুর নবনির্বাচিত ভিপি নূরুল হক নূর ও সমাজসেবা সম্পাদক আখতার হোসেন।


শুক্রবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে নূর এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেন। তিনি বলেন, শিক্ষার্থীদের চাওয়া-পাওয়াকে প্রাধান্য দিয়ে ডাকসুর কার্যকরী সভায় আমরা আনুষ্ঠানিকভাবে দায়িত্ব গ্রহণ করব। পুনর্নির্বাচনের দাবিসহ শিক্ষার্থীদের অন্য যেসব সমস্যা রয়েছে, সেগুলো সমাধান করতে আমাদের নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলন-সংগ্রাম চলবে। পুনর্নির্বাচনের চাওয়া আমাদের বরাবরের মতোই রয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনিয়ম এবং ডাকসু নির্বাচনের অনিয়মের বিরুদ্ধে আন্দোলনকে আরো বেগবান করার জন্য আমরা দায়িত্ব নিচ্ছি।


এদিকে, ডাকসুর প্রথম কার্যকরী সভা ও অভিষেক অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের প্যানেল নানা পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে। প্রথম কার্যকরী সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ডাকসুর আজীবন সদস্য করার প্রস্তাব করবেন বলে জানা যায়। এছাড়া তারা বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে তাদের দেওয়া ইশতেহার বাস্তবায়নের কাজও করবেন।


এ ব্যাপারে ডাকসুর সহ-সাধারণ সম্পাদক (এজিএস) ও ঢাবি শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন বলেন, আমরা সবাই দায়িত্বগ্রহণ করব। আমরা যে ইশতেহার দিয়েছি তাও বাস্তবায়ন করব।


তিনি বলেন, কার্যকরী সভায় আমরা সার্বিকভাবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে নিয়ে প্রকল্প উপস্থাপন করবো যাতে করে ঢাবি একটি আন্তর্জাতিক বিশ্ববিদ্যালয়ে পরিণত হয়। ঢাবি যেন বৈশ্বিক মানের গ্র্যাজুয়েট তৈরি করতে পারে এবং আমরা আমাদের ইশতেহারে যে প্রস্তাবনাগুলো দিয়েছি এবং যারা জয়ী হয়নি তাদের প্রস্তাবনাগুলো নিয়ে একটি দীর্ঘমেয়াদি, স্বল্পমেয়াদি প্রকল্প উপস্থাপন করবো, যাতে ঢাবিকে স্বপ্নের বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া যায়।


সর্বশেষ ডাকসু নির্বাচন হয়েছিল ১৯৯০ সালে। সে বছর ৬ ডিসেম্বর এরশাদ সরকারের পতনের পর শুধু ডাকসু নয়, কোনো পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র সংসদের নির্বাচন হয়নি।


বিবার্তা/রাসেল/জাকিয়া

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com