দায়িত্ব মনে করে এসব সেবা দিয়েছি: সনজিত
প্রকাশ : ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৪:৫৩
দায়িত্ব মনে করে এসব সেবা দিয়েছি: সনজিত
ঢাবি প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে 'খ' ইউনিটে ভর্তিচ্ছুদের তথ্য সেবা, নির্দিষ্ট কেন্দ্রে পৌঁছাতে ফ্রি জয় বাংলা বাইক সার্ভিস, সুপেয় পানির ব্যবস্থা, ফ্রি কলম বিতরণসহ নানা সেবায় ভর্তিচ্ছুদের বরণ করে নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ।


এমনকি শাখা সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাস নিজে উদ্যোগী হয়ে পানির বোতল বহন করেছেন,অভিভাবক-শিক্ষার্থীদের পানি পান করিয়েছেন।



ভর্তিচ্ছুক শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের এসব সেবা প্রদান প্রসঙ্গে জানতে চাইলে সনজিত চন্দ্র দাস বিবার্তা অনলাইনকে বলেন, আমরা শিক্ষা, শান্তি, প্রগতির পতাকাবাহী সংগঠন। আমরা মেধায় বিশ্বাসী, মানবতায় বিশ্বাসী। এজন্য আমরা ভর্তিচ্ছুক শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের কল্যাণের কথা বিবেচনা করে তথ্যসেবা, জয় বাংলা বাইক সার্ভিস, সুপেয় পানি ও কলম বিতরণসহ আরো অনেক কাজ করেছি।


এ ছাত্রনেতা আরো বলেন, আমরা দায়িত্ব মনে করে এসব সেবা দিয়েছি।


ঢাবি ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসাইন বলেন, ভর্তিচ্ছুক শিক্ষার্থীদের স্বপ্নের সারথি হতে আমরা এসব কর্মসূচি হাতে নিয়েছি। ভর্তিচ্ছুক শিক্ষার্থী-অভিভাবকরা অনেক কিছু চিনে না, জানে না। তাই তাদের এসব ভোগান্তি দূর করে, যাতে তারা নিশ্চিন্তে পরীক্ষা দিয়ে বাড়ি ফিরতে পারে, এজন্য আমরা এসব সেবা প্রদান করেছি।



প্রসঙ্গত, শুক্রবার সকালে ঢাবি ক্যাম্পাসে 'খ' ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা চলাকালে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের আইবিএ পয়েন্ট, লাইব্রেরি গেট, কলাভবনের সামনের ও পেছনের গেট, ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ ভবন, কার্জন হল, গণিত ভবন, আইন অনুষদ, বিজ্ঞান গ্রন্থাকার, শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউট, ইউনিভার্সিটি ল্যাবরেটরি স্কুল, চারুকলা অনুষদ, শাহবাগ মোড়, ডাকসু ভবন, সমাজকল্যাণ অনুষদ, খাদ্য ও পুষ্টি বিজ্ঞান ইনস্টিটিউট ও মুক্তি ও গণতন্ত্র তোরণ পয়েন্টে ছাত্রলীগের বিভিন্ন ইউনিট তথ্যসেবা দিয়েছেন।


এদিকে ভর্তিচ্ছুদের নির্দিষ্ট কেন্দ্রে পৌঁছাতে ফ্রি জয় বাংলা বাইক সেবা ছিল শাহবাগ, নীলক্ষেত, দোয়েল চত্বর, পলাশী মোড় থেকে। ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা স্বেচ্ছায় এ সেবা দিয়েছেন।


আরো দেখা যায়, ক্যাম্পাসের হাকিম চত্বর, অপরাজেয় বাংলা, কার্জন হল, ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ ভবনসহ গুরুত্বপূর্ণ সব পয়েন্টে সুপেয় পানির ব্যবস্থা ছিল।


এদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাজেয় বাংলায় ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে রাখা হয়েছিল মেডিকেল সেবা। ছাত্রলীগের এসব কার্যক্রমকে ভর্তিচ্ছুক শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা সাধুবাদ জানিয়েছেন, যা কয়েকজন ভর্তিচ্ছুক শিক্ষার্থী ও অভিভাবকের সাথে কথা বলে জানা গেছে।


বিবার্তা/রাসেল/শারমিন

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com