কোটা আন্দোলনে হামলার প্রতিবাদে ঢাবি শিক্ষকদের পদযাত্রা
প্রকাশ : ০৮ জুলাই ২০১৮, ১৫:৩২
কোটা আন্দোলনে হামলার প্রতিবাদে ঢাবি শিক্ষকদের পদযাত্রা
ঢাবি প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

কোটা সংস্কার আন্দোলনে গ্রেফতারকৃত সকল নেতাকর্মীদের মুক্তি ও কর্মসূচিতে হামলাকারীদের বিচার চেয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) ক্যাম্পাসে পদযাত্রা করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের একাংশ।


রবিবার সকাল ১১টার পর বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে নিপীড়নবিরোধী শিক্ষকদের ব্যানারে এ প্রতিবাদ কর্মসূচি শুরু হয়।আর শেষ হয় দুপুরে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে গিয়ে।


পদযাত্রায় অংশ নেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের অর্ধশতাধিক শিক্ষক।


শিক্ষকরা এ সময় বলেন, কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের ওপর যে সহিংস হামলা করা হয়েছে এটা জাতির জন্য কাম্য নয়। অবিলম্বে শিক্ষার্থীদের মুক্তির ব্যবস্থা করতে হবে। আর হামলাকারীদের বিচার করতে হবে।


এ সময় পাঁচ দফা দাবি তুলে ধরেন বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক গীতি আরা নাসরিন।


দাবিগুলো হলো, সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সকল হামলাকারীর বিচার, আক্রান্ত শিক্ষার্থীদের নামে করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার, আক্রান্তদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করা, নারী আন্দোলনকারীদের বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়ন (সাইবার ও শারীরিক) এর বিচার এবং কোটা সংস্কারের দ্রুত প্রজ্ঞাপন জারির মাধ্যমে স্থিতিশীলতা ফিরিয়ে দিতে হবে।


পদযাত্রায় উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমিরেটাস অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, আইন বিভাগের অধ্যাপক আসিফ নজরুল, সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক গীতি আরা নাসরীন, আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক তানজীম উদ্দীন খানসহ আরো অনেকে।



এদিকে এদিন সকালে কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতা রাশেদ খানসহ গ্রেফতারকৃত নেতাদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদে মানববন্ধন করেছে ব্যাংকিং অ্যান্ড ইনস্যুরেন্স বিভাগের শিক্ষার্থীরা। রাশেদ এ বিভাগের মাস্টার্সের ছাত্র।


এ সময় শিক্ষার্থীরা মুখে কালো কাপড় বেধে বিভিন্ন লেখা সম্বলিত প্ল্যাকার্ড নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকে। তাদের প্ল্যাকার্ডে লেখা ছিল, আর নয় অনাচার এবার চাই অধিকার, রাশেদের বাবাকে হুমকি কেন? চাইতে গিয়ে অধিকার সইব কত অত্যাচার, আমার ভাই রাশেদ রিমান্ডে কেন?


মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, কোটা সংস্কারের যৌক্তিক আন্দোলনের নেতৃত্ব দিচ্ছিল রাশেদ খান। কিন্তু হামলাকারীরা তাদের এ যৌক্তিক আন্দোলনে হামলা করে আন্দোলনকে ব্যাহত করে দেয়। পরে আন্দোলনে নেতৃত্বে থাকা রাশেদ খানসহ অন্যদের গ্রেফতার করে পুলিশ।এরপর তাদের রিমান্ডে নেয়া হয়। আমরা এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই। আর সেই সাথে রাশেদসহ গ্রেফতার সবার দ্রুত মুক্তির দাবি জানাচ্ছি।


বিবার্তা/রাসেল/জহির

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com