জাবিতে তুচ্ছ ঘটনায় দু’হলের সংঘর্ষ: আহত ৩
প্রকাশ : ১৯ মার্চ ২০১৮, ১৩:০০
জাবিতে তুচ্ছ ঘটনায় দু’হলের সংঘর্ষ: আহত ৩
জাবি প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই হলের ছাত্রলীগ কর্মীদের মধ্যে মারধরের ঘটনা ঘটেছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের মওলানা ভাসানী হলের সামনে রবিবার রাত ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় উভয় হলের তিনজন আহত হয়েছে।


আহত ছাত্রলীগ কর্মীরা হলো- বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর হলের আবাসিক ছাত্র ও নৃবিজ্ঞান বিভাগের (৪৬তম ব্যাচ) শিক্ষার্থী আরিফুজ্জামান সেজান ও আসাদ। তাদের উভয়কে তাৎক্ষণিক বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেল সেন্টারে নিয়ে যাওয়া হয়। একই ঘটনায় মওলানা ভাসানী হলের আবাসিক শিক্ষার্থী এবং ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের (৪৭তম ব্যাচ) মোঃ মাসুক মাওলা অঙ্কুর আহত হয়েছে। তিনি বর্তমানে সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে।


সেজান বলেছে, ভাসানী হলের সামনে দিয়ে শোডাউন নিয়ে তাদের সাথে আমাদের হলের জুনিয়রদের (৪৭তম ব্যাচ) সাথে বাকবিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে ফোনে আমাদের জানালে ঘটনাস্থলে আমরা উপস্থিত হই ও উদ্ভূত ঘটনা সমাধান করি। মীমাংসার পর আমরা হলে চলে আসার সময় ভাসানী হলের ৪৩তম ব্যাচের পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের আসিফ ও প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের আসিফের নেতৃত্বে পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের (৪৪ব্যাচ) মেহেদী, ৪৫তম ব্যাচের প্রাণিবিদ্য বিভাগের বিকাশ, হিমু, সরকার ও রাজনীতি বিভাগের জাহিদ শেখ, দর্শন বিভাগের তানজিল, ৪৬তম ব্যাচের ইতিহাস বিভাগের মাসুম বিল্লাহ, নিহান নিবিড়, আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের নাসিমসহ ১৪-১৫জন হামলা চালায়। এসময় আমাকে ও আমার বন্ধু আসাদকে গাছের গুড়ি ও স্ট্যাম্প দিয়ে বেধড়ক মারধর করে।


অঙ্কুর বলেছে, প্রতিদিনি হলের সামনে দিয়ে ওই হলের শিক্ষার্থীরা শোডাউন দেয়ার সময় আমাদেরকে গালিসহ বিভিন্ন উসকানিমূলক কথা বলে। আমরা তাদের এসব বলতে বারণ করায় তারা আমাদের ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে ওই হলের সেজান ও আসাদ আমার শার্টের কলার ধরে টেনে নিয়ে বেধড়ক মারধর করে। এতে আমার কান ফেটে যায়।


মেডিকেল সূত্রে জানা যায়, ঘটনার পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেল সেন্টার তিনজনের চিকিৎসা নিয়েছে। এর মধ্যে অঙ্কুরের কান ফেটে যাওয়ায় এনাম মেডিকেলে নিয়ে যাওয়ার জন্য সুপারিশ করা হয়।


এ বিষয়ে ছাত্রলীগের জাবি শাখার সভাপতি মোঃ জুয়েল রানা বলেন, ঘটনাটি ঘটেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের জুনিয়র ব্যাচ ৪৬ ও ৪৭তম ব্যাচের মধ্যে। বিষয়টি ছাত্রলীগের সাথে সম্পর্কিত না। প্রশাসন বরাবর তারা লিখিত অভিযোগ দেবে, সে অনুযায়ী প্রশাসন দুষ্কৃতিকারীদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ গ্রহণ করবে।


এ বিষয়ে প্রক্টর অধ্যাপক তপন কুমার সাহা বলেন, ঘটনা শুনেছি, তবে কোনো অভিযোগপত্র পাইনি। অভিযোগপত্র পেলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেব।


বিবার্তা/জোবায়ের/জাকিয়া

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com