ডাক দিয়ে যায় নারী দিবস
প্রকাশ : ০৭ মার্চ ২০১৮, ২৩:০১
ডাক দিয়ে যায় নারী দিবস
প্রিন্ট অ-অ+

প্রতি বছর ৮ মার্চ সারা বিশ্বে ঘটা করে পালন করা হয় বিশ্ব নারী দিবস। এবছরও তার ব্যত্যয় ঘটছে না। বাস্তবতা হলো, সারা বিশ্বে অভূতপূর্ব নারী জাগরণ সত্ত্বেও পুরুষের সাথে তুলনায় নারী এখনো পিছিয়ে। আমরা যদি একবার ভাবি, নারী আসলে কে বা কারা - তাহলে এমন তো হওয়ার কথা নয়!


একজন নারী কখনো পরম মমতাময়ী মা, কখনো বোন, কখনো স্ত্রী। স্বামী-পুত্র-কন্যা তথা পুরো সংসারের সুখের জন্য যিনি হাসতে হাসতে নিজেকে উৎসর্গ করেন, তিনিই নারী। নানা ঘাত-প্রতিঘাত পার করেই চলে একজন নারীর জীবন।


এমন একজন মানুষের জন্য উৎসর্গ করা যায় বছরের প্রত্যেকটি দিন। তার জন্য যা-ই করা হোক না কেন, তার কাজ ও ত্যাগের তুলনায় সবই খুব কম। বিশ্ব নারী দিবস আমাদের কাছে প্রতি বছর এ বার্তা নিয়েই আসে, এবারও এসেছে।


আমাদের দেশে অনেককেই বলতে শোনা যায়, নারীরা কী কাজ করে? তারা তো সারা দিন ঘরেই বসে থাকে। এ জ্ঞানপাপীরা বোঝে না যে নারীরা সারাদিন ঘরে থাকেন, তারা ঘরেই থাকেন বটে তবে একটুও বসে থাকেন না। গৃহকর্মে যে সময় ও শ্রম তারা দেন, অর্থমূল্যে তার বিচার করা হয় না বলেই এরা এভাবে বলতে সাহস পান।


পাশাপাশি এও বলি, শুধু গৃহস্থালি কাজে সময় ও শ্রম দেয়ার জন্যই নারীর জন্ম হয়নি। আর নারীকে গৃহবন্দী করে রেখে কোনো দেশ ও সমাজ বেশিদূর আগাতে পারে না। সুখের বিষয়, বিশ্বে এ উপলব্ধিটা ক্রমেই জোরদার হচ্ছে। তাই তো আজ আমরা দেখতে পাই, সউদি আরবের মতো রক্ষণশীল দেশও নারীদের অন্তঃপুর থেকে বাইরের আলোয় আসার সুযোগ করে দিচ্ছে।


এর বিপরীতে আমাদের অবস্থা কী? রাজনৈতিক দৃষ্টিকোণ থেকে দেখলে নারী ক্ষমতায়নে আমাদের দেশ অনেকদূর এগিয়েছে, এ নিয়ে বিতর্কের অবকাশ নেই। সেই ৯০এর দশক থেকে নারীরাই এদেশের সরকারপ্রধান ও বিরোধীদলীয় নেতা। এখন সংসদের স্পীকারও নারী। এছাড়া সরকারি উচ্চপদেও অধিক সংখ্যায় আসীন হচ্ছে নারীরা। বুঝাই যায়, নারী ক্ষমতায়নে সরকারের সদিচ্ছার অভাব নেই।


কিন্তু দুঃখের সাথে বলতে হয়, সরকার এগোলেও সমাজ অনেক পিছিয়ে আছে। উদাহরণ বাহুল্যমাত্র। প্রতিদিনের পত্রিকাই আমাদের পিছিয়ে-পড়া সমাজমানসিকতার সাক্ষ্য বহন করে। বাড়িতে, গাড়িতে, কর্মস্থলে সর্বত্র লাঞ্ছিত হচ্ছে নারী।


কিন্তু এভাবে চলতে পারে না। জাতির অর্ধেকাংশকে এভাবে দাবিয়ে রেখে আর যা-ই হোক, সত্যিকার উন্নয়ন হয় না, হতে পারে না। তাই সরকারের পাশাপাশি সমাজকেও এ ব্যাপারে এগিয়ে আসতে হবে।


বিশ্ব নারী দিবস আমাদের সকলের রুদ্ধ বিবেকের দরজায় সেই ডাকই দিয়ে যায়। আমরা কি তা শুনতে পাই?

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com